Header Ads Widget


 

নারীর পর্দা সম্পর্কে কুরআন, নারীর পর্দা নিয়ে উক্তি, ইসলামে নারীর পর্দার নিয়ম, ইসলামে নারীর পর্দা হাদিস, পর্দায় থাকা নারীরা কি পুরুষদের দেখতে পারবে?

 

নারীর পর্দা সম্পর্কে কুরআন,  নারীর পর্দা নিয়ে উক্তি,  ইসলামে নারীর পর্দার নিয়ম, ইসলামে নারীর পর্দা হাদিস, পর্দায় থাকা নারীরা কি পুরুষদের দেখতে পারবে?

পর্দা মুসলিম নারীর সৌন্দর্য। নারীর মান-সম্মান, ইজ্জত-আবরুর রক্ষাকবচ। তাইতো নারীদের জন্য পর্দা পালন করা ফরজ ইবাদাত। কিন্তু পর্দার অন্তরালে থেকে নারীরা কি লুকিয়ে গায়রে মাহরাম পুরুষদের দেখতে পারবে? এ সম্পর্কে ইসলামের দিকনির্দেশনা কী?


না, পর্দার অন্তরালে থেকে লুকিয়ে বা গোপনে যে কোনোভাবে নারীরা গায়রে মাহরাম পুরুষদের দেখতে পারবে না। কেননা কোরআন-সুন্নাহর বর্ণনা থেকেই তা প্রমাণিত। এক্ষেত্রে আল্লাহ তাআলা মুমিন পুরুষদের পাশাপাশি মুমিন নারীদের তাদের দৃষ্টিকে নিচু রাখতে বলেছেন। আল্লাহ তাআলা বলেন-


‘ঈমানদার নারীদেরকে বলুন, তারা যেন তাদের দৃষ্টিকে নত রাখে এবং তাদের যৌন অঙ্গের হেফাযত করে। তারা যেন যা সাধারণতঃ প্রকাশমান, তা ছাড়া তাদের সৌন্দর্য প্রদর্শন না করে এবং তারা যেন তাদের মাথার ওড়না বক্ষদেশে ফেলে রাখে এবং তারা যেন তাদের স্বামী, পিতা, শ্বশুর, পুত্র, স্বামীর পুত্র, ভ্রাতা, ভ্রাতুস্পুত্র, ভগ্নিপুত্র, স্ত্রীলোক অধিকারভুক্ত দাসী, যৌনকামনামুক্ত পুরুষ ও বালক, যারা নারীদের গোপন অঙ্গ সম্পর্কে অজ্ঞ, তাদের ছাড়া কারো কাছে তাদের সৌন্দর্য প্রকাশ না করে, তারা যেন তাদের গোপন সাজ-সজ্জা প্রকাশ করার জন্য জোরে পদচারণা না করে। মুমিনগণ, তোমরা সবাই আল্লাহর সামনে তওবা করো, যাতে তোমরা সফলকাম হও।’ (সুরা নুর : আয়াত ৩১)


পর্দার মধ্যে থেকে পুরুষদের দেখা যাবে মর্মে এ হাদিস সুস্পষ্ট দিকনির্দেশনা দেয়। তাহলো-


হজরত উম্মে সালমা রাদিয়াল্লাহু আনহা থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, একদিন আমি ও মায়মুনা রাদিয়াল্লাহু আনহা রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের দরবারে ছিলাম। এমতাবস্থায় (দৃষ্টিহীন সাহাবী) আবদুল্লাহ ইবনে উম্মে মাকতুম রাদিয়াল্লাহু আনহু রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের দরবারে আগমন করলেন। তখন রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বললেন, তোমরা পর্দার অন্তরালে চলে যাও। আমি বললাম, হে আল্লাহর রাসুল! ইনি কি দৃষ্টিহীন নন? ইনি তো আমাদেরকে দেখছেন না। জবাবে আল্লাহর রাসুল বললেন, তোমরা কি তাকে দেখছো না? (আবু দাউদ, মুসনাদে আহমাদ, তিরমিজি, মিশকাত)


অন্য বর্ণনায় রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, নারী গোপনযোগ্য। যখন সে ঘর থেকে বের হয় তখন শয়তান তার দিকে তাকাতে থাকে। (মিশকাত)


সুতরাং কোরআন-সুন্নাহর দিকনির্দেশনা থেকে বোঝা গেলো যে, পর্দার অন্তরালে থেকে লুকিয়ে কিংবা গোপনে কোনো গায়রে মাহরাম পুরুষের দিকে তাকানো যাবে না। তাকালে তা পর্দার খেলাপ হবে।


আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহর সব নারীকে কোরআন-সুন্নাহর দিকনির্দেশনা অনুযায়ী আমল করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

Post a Comment

0 Comments